ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

জাতীয় নির্বাচন ২০২৪

কুমিল্লায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর ওপর হামলার ঘটনা সাজানো নাটক : পুলিশ

নিউজ ডেস্ক

 প্রকাশিত: নভেম্বর ২৬, ২০২৩, ১২:২২ রাত  

ছবি সংগৃহীত

কুমিল্লায় গোলাম সারওয়ার মজুমদার নামে এক স্বতন্ত্র প্রার্থী মনোনয়ন কেনার কারণে হামলার ঘটনাকে ওই প্রার্থীর সাজানো নাটক বলে জানিয়েছে পুলিশ। এ ঘটনায় জড়িত ৫ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তাররা হলেন, কুমিল্লা নগরীর ছোটরা মফিজাবাদ কলোনি এলাকার মো. সুমন, মো. সবির, মো. সবুজ, ইকবাল হোসেন ও মাসুদ রানা।

শনিবার (২৫ নভেম্বর) বিকেলে কুমিল্লা জেলা পুলিশ সুপার আব্দুল মান্নান সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান। 

সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার বলেন, নাটক সাজাতে লোক ভাড়া করে হামলার ঘটনাটি সাজিয়েছেন কথিত স্বতন্ত্র প্রার্থী গোলাম সারওয়ার মজুমদার। ঘটনার দুদিন আগে গোলাম সারোয়ার নগরীর মফিজাবাদ কলোনিতে কথিত হামলাকারীদের সঙ্গে বৈঠক করে পুরো নাটকটি সাজান। নাটকটা ছিল এমন, সারোয়ার জেলা নির্বাচন কার্যালয়ে যাবেন মনোনয়ন ফরম তুলতে, সেখান থেকে ফেরার পথে তার ওপর হামলা হবে এবং কয়েকজন ব্যক্তির নাম ব্যবহার করে মনোনয়ন ফরম ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করা হবে। তিনি হামলাকারীদের একটু কম মারতে বলে দেন। ঘটনার ভিডিও করার জন্য মনোহরগঞ্জ থেকে সঙ্গে করে দুজন নিয়ে আসেন তিনি। গ্রেপ্তার পাঁচজনই একই বক্তব্য দিয়েছেন। ঘটনার পরিকল্পনা যেখানে হয়েছে, সেই চা দোকানিকে আমরা পেয়েছি, তিনি ঘটনার সাক্ষ্য দিতে রাজি হয়েছেন।

পুলিশ সুপার আরও বলেন, সারোয়ারের মূল উদ্দেশ্য ছিল ওই আসনে জাতীয় নির্বাচনের সঙ্গে যুক্ত সবাইকে বিতর্কিত করা। আমরা গ্রেপ্তারকৃতদের আরও বিস্তারিত জিজ্ঞাসাবাদ করছি। আর সারোয়ারকে আটকের চেষ্টা চলছে। তাকে আটক করার পর জানতে পারবো পুরো নির্বাচনী প্রক্রিয়াকে বিতর্কিত করার জন্য এমন ঘটনা করেছে কিনা বা তার মূল উদ্দেশ্য কী? এজন্য আমরা ঘটনাটি ভালোভাবে তদন্ত করে দেখছি। এ ঘটনায় কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

এদিকে ঘটনার পর থেকে মোবাইল ফোন বন্ধ রয়েছে গোলাম সারওয়ারের। ধারণা করা হচ্ছে তিনি গা ঢাকা দিয়েছেন। 

প্রসঙ্গত, শুক্রবার (২৪ নভেম্বর) দুপুরে কুমিল্লা নির্বাচন অফিসের সামনে গোলাম সারওয়ার মজুমদার নামে এক স্বতন্ত্র প্রার্থী কুমিল্লা -৯ (লাকসাম-মনোহরগঞ্জ) আসন মনোনয়ন কেনায় তার ওপর দুর্বৃত্তরা হামলা চালায় বলে অভিযোগ করেন। এ ঘটনায় রিটার্নিং কর্মকর্তা বরাবর তিনি লিখিত অভিযোগ দেন।