ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

অবশেষে সাংবাদিকদের কাছে ক্ষমা চাইলেন তানজিন তিশা

বিনোদন ডেস্ক

 প্রকাশিত: নভেম্বর ২৫, ২০২৩, ০৬:৪২ বিকাল  

ছবি সংগৃহীত

সংবাদকর্মীদের উড়িয়ে দেওয়ার শব্দ প্রয়োগ করে হুমকি দেওয়ার ঘটনায় সমালোচনায় মুখে ক্ষমা চাইলেন তানজিন তিশা। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে সাংবাদিকদের দেখে নেওয়া হুমকি দেন ছোট পর্দার এই অভিনেত্রী। তার এই মন্তব্য নিয়ে সমালোচনার ঝড় ওঠে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। এরপর প্রতিবাদে নামেন বিনোদন সাংবাদিকরা।

শনিবার (২৫ নভেম্বর) ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা ডিবি পুলিশ কার্যালয় এসে গণমাধ্যমকর্মীদের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন জনপ্রিয় এ অভিনেত্রী।

এর আগে দুপুর ১২ দিকে মিন্টু রোডের ডিবি কার্যালয়ে শিল্পী সংঘের সভাপতি আহসান হাবীব নাসিম ও সাধারণ সম্পাদক রওনক হাসানকে নিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন তিশা। তারপর গণমাধ্যমের মুখোমুখি হন তিনি।

অভিযোগ তুলে নিয়ে অভিনেত্রী বলেন, আমি তানজিন তিশা। আপনাদের সকলের ভালোবাসা ও সহযোগিতায় অভিনয়শিল্পী তানজিন তিশা। আমি কয়েকদিন আগে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ছিলাম। সেখান থেকে বাসায় ফেরার পর দেখলাম দু’একটি নিউজ পোর্টাল আমার আত্মহত্যার চেষ্টা শিরোনামে নিউজ করেছে। এমন সময় সাংবাদিক তামিম যার সাথে আমার পূর্ব পরিচয় নেই সে আমাকে একটি টেক্সট করে যেটি পড়ে আমার কাছে মনে হয়েছে প্রশ্নটি এই সময়ের জন্য যৌক্তিক ছিলো না। আমি ভাবতেই পারিনি এই সময়ে আমাকে কেউ এমন বিষয়ে টেক্সট করতে পারে বা একজন নারীকে এমন প্রশ্ন করতে পারে। আমি নিজেকে সামলাতে না পেরে উত্তেজিত হয়ে তাকে কল দিয়ে টেক্সটের বিষয় নিয়ে নিউজ করলে আমি সর্বোচ্চ ব্যবস্থা নেব বলি। আমি তার সাথে ফোনে যে শব্দ উচ্চারণ করেছি আমি জানি আমি তা সঠিক নয়। পরবর্তীতে আমি আমার ভুল বুঝতে পেরে সকলের কাছেই দুঃখপ্রকাশ করেছি।

তানজিন তিশার রেকর্ড!

তিনি বলেন, এরমধ্যে আমার ফোনের রেকর্ড শুনে অন্যান্য সাংবাদিকরা রেগে যান, প্রতিবাদ করেন। যা খুবই যৌক্তিক। তবে  আমাকে এবং আমার পরিবারকে ঘিরে অনেকেই অসত্য,মনগড়া আজেবাজে সংবাদ ও লেখা সোশ্যাল মিডিয়াতে লেখেন যাতে একজন নারী হিসেবে একজন শিল্পী হিসেবে ভীষণ অসম্মানজনক। এমনকি অনেকে আমি ছাড়াও সকল শিল্পীদের কে সাইবার বুলিং, হুমকি ও নানান কুৎসা রটনা করতে থাকেন। এসব দেখে আমি ডিবি ডিএমপিতে অভিযোগ করতে আসি সেখানে ও গণমাধ্যমের আমাকে প্রশ্ন করলে আমি তামিম এর সাথে তার প্রতিষ্ঠানের কথাও উল্লেখ করি। যা একদমই উদ্দেশ্যমূলক ছিলোনা এবং এটা আমি তামিমের পরিচয় বুঝাতে গিয়ে উল্লেখ করি।

তিশা আরো বলেন ,সেজন্য ও আমি  প্রতিষ্ঠানের সকলের  প্রতি দুঃখপ্রকাশ করছি। এবং তামিম তার ভুল বুঝতে পেরেছে বিধায় আমি পুলিশের কাছে যে অভিযোগ করেছি সেটাও তুলে নিচ্ছি। তবে যারা আমার এবং আমার পরিবার ঘিরে অসত্য ও অসম্মানজনক নিউজ ও লেখা প্রকাশ করেছেন তারাও তাদের কৃতকর্মের জন্য অনুতপ্ত হবেন এবং লেখা গুলো সরিয়ে নেবেন সেটাও আমি প্রত্যাশা করি। আমিও এটাও চাই- মূলধারার সংবাদ মাধ্যম ও সাংবাদিক যারা আছেন। তারাও সাংবাদিকতার নামে যে সকল অপসাংবাদিক আছে, পোর্টাল আছে; যারা শিল্পীদের অসম্মান করে ফায়দা লুটতে চায় তাদের প্রতিহত করবে। সেই আমার পাশে, শিল্পীদের পাশে সবসময় যেমন ছিলেন তেমনি থাকবেন। সবাই ভালো থাকবেন।