বন্ধ হলো আলিপুর কারাগার, বন্দী ছিলেন নেতাজি-নেহরু-নজরুল

Date: 2021-11-06
news-banner


আলিপুর কারাগারে নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু, ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহরু, বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলাম, চারু মজুমদার, চিত্তরঞ্জন দাস, অরবিন্দ ঘোষ, বারিন ঘোষ, শরৎচন্দ্র বসু, বিধানচন্দ্র রায়, কে কামরাজ, প্রফুল্ল সেন, জ্যোতি বসু ছাড়াও বহু স্বাধীনতাসংগ্রামী ও রাজনৈতিক নেতা বন্দী ছিলেন।

১৯৩৪ সালে বন্দী হয়ে ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহরু কারাগারটির যে বাড়িতে বন্দী ছিলেন, সেই বাড়ি পরে ‘নেহরু ভবন’ নামকরণ করা হয়। আলিপুর কারাগারেই টানা ৯ মাস বন্দী ছিলেন নেতাজি সুভাস চন্দ্র বসু। তাঁর স্মৃতির প্রতি সম্মান জানাতে এই কারাগারে ‘নেতাজি ভবন’ তৈরি করা হয়।

দক্ষিণ কলকাতায় ৪০ একর জমি নিয়ে আলিপুর কারাগার। সেখানে রয়েছে ২৫টি ওয়ার্ড, আধুনিক কারা হাসপাতাল, ফাঁসির মঞ্চ, আধুনিক প্রযুক্তির ছাপাখানা ও ১০টি আলাদা সেল। ফাঁসির আসামিদের এসব সেলে রাখা হতো।

২০০৪ সালের ১৪ আগস্ট আলিপুর কারাগারে সর্বশেষ কলকাতার এক খুন ও ধর্ষণের মামলায় ফাঁসির আদেশ পাওয়া আসামি ধনঞ্জয়ের ফাঁসি কার্যকর করা হয়। পশ্চিমবঙ্গ সরকার এই কারাগারের স্মৃতিবাহী কিছু ভবন ও ফাঁসির মঞ্চকে সংরক্ষিত রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আর বাকি জায়গায় গড়ে তুলবে গ্রিন সিটি আবাসন।

Leave Your Comments